বাজে রেকর্ড দিয়ে ইংল্যান্ডকে লজ্জার ডুবালো আয়ারল্যান্ড

0
582
England

কিছু দিন আগেই নিজেদের মাঠে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে দারুণ খেলে শিরোপা ঘরে তুলে ইংল্যান্ড। সেই বিশ্বকাপের রেশ কাটতে না কাটতে সেই মাঠেই তাদের লজ্জায় ডুবালো দুর্বল আয়ারল্যান্ড। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ২৩.৪ ওভারে টিকে জো রুটদের প্রথম ইনিংস।

দেশের মাটিতে ওভারের দিক থেকে এটাই টেস্টে ইংল্যান্ডের সবচেয়ে স্বল্পস্থায়ী ইনিংস। আগে সবচেয়ে স্বল্পস্থায়ী ইনিংস টিকেছিল ৩০ ওভার, ১৯৯৫ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বার্মিংহামে।

ওয়ানডেতে দারুণ ছন্দে থাকা জেসন রয় অভিষেকে ভালো করতে পারেননি। তৃতীয় ওভারে এই ওপেনারকে ফিরিয়ে শিকার ধরেন মারটাঘ।

এক প্রান্ত নিজেকে গুটিয়ে রেখেছিলেন ররি বার্নস। আস্থার সঙ্গে খেলছিলেন জো ডেনলি। তবে ডেনলিকে এলবিডব্লিউ করে ইংলিশদের প্রতিরোধ ভাঙেন অ্যাডায়ার। পরে ধরেন আরও বড় শিকার। এলবিডিব্লিউ করে বিদায় করেন ইংলিশ অধিনায়ক রুটকে।

অ্যাডায়ারের দুই উইকেটের মাঝে বার্নসকে বিদায় করেন মারটাঘ। ২২৮টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতায় ঋদ্ধ দীর্ঘদেহী এই পেসারের দারুণ বোলিংয়ের সামনে রানের খাতাই খুলতে পারেননি জনি বেয়ারস্টো, মইন আলি ও ক্রিস ওকস।

মারটাঘ ও অ্যাডায়ারের ছোবলে এক পর্যায়ে ৭ রান তুলতে ৬ উইকেট হারিয়ে ফেলে কদিন আগে লর্ডসে প্রথমবারের বিশ্বকাপের শিরোপা জেতা ইংল্যান্ড।

বাকিটা সারেন বয়েড র‌্যানকিন। বিদায় করেন স্টুয়ার্ট ব্রড ও স্যাম কারানকে। অলিভার স্টোনকে বোল্ড করে প্রথম সেশনেই ইংলিশদের গুটিয়ে দেন অ্যাডায়ার।

১৩ রানে ৫ উইকেট নিয়ে আয়ারল্যান্ডের সফলতম বোলার মারটাঘ। অ্যাডায়ার ৩ উইকেট নেন ৩২ রানে। র‌্যানকিন ৫ রানে নেন ২ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস: ২৩.৪ ওভারে ৮৫ (বার্নস ৬, রয় ৫, ডেনলি ২৩, বেয়ারস্টো ০, মইন ০, ওকস ০, কারান ১৮, ব্রড ৩, স্টোন ১৯, লিচ ১*; মারটাঘ ৯-২-১৩-৫, অ্যাডায়ার ৭.৪-১-৩২-৩, টম্পসন ৪-১-৩০-০, র‌্যানকিন ৩-১-৫-২)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here