কঠিন শাস্তির মুখোমুখি হতে যাচ্ছে মেসি। নিষিদ্ধ হতে পারে ২০২০ কোপা আমেরিকায়

0
435
messi banned

ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত কোপা আমেরিকার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে চিলির বিপক্ষে লাল কার্ড দেখেন লিওনেল মেসি। তাই ম্যাচ শেষে তীব্র সমালোচনা করেন করেন মেসি। তিনি কোপা আমেরিকাকে “দুর্নীতির টুর্নামেন্ট” বলে মন্তব্য করেন এবং কোপা আমেরিকার সংগঠকদের ও রেফারিদের অভিযুক্ত করে মন্তব্য করেন।

ম্যাচ শেষে মেসি তৃতীয় স্থানের মেডেল নিতে অস্বীকৃত জানায়। তিনি বলেন ” কোপাকে ব্রাজিলের জন্য তৈরি করা হয়েছে, আশা করছি রেফারি এবং ভিএআর কিছু প্রভাব ফেলবে না এবং তারা পেরুকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দেবে, কিন্তু আমি মনে করি এটি অসম্ভাব্য।”

আর্জেন্টিনা এবং বার্সেলোনার তারকা মেসি পূর্বে অনুষ্ঠিত সেমি-ফাইনালে ব্রাজিলের বিপক্ষে পরাজিত হওয়ার পর বাজে রেফারিং বলে মন্তব্য করেছিলেন এবং তিনি তার মন্তব্যের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বলেন, তিনি মনে করেন যে সে যা বলেছিল সেটি সম্ভবত প্রভাবিত হয়েছে তার লাল কার্ডে।

মেসির মন্তব্য এখন তাকে কনমেবল থেকে কঠোর শাস্তির মুখোমুখি করতে পারে, কনমেবল নিয়ম অনুযায়ী তার প্রতিষ্ঠান বা কর্মীদের যেকোনো উপায়ে অপমানজনকভাবে মন্তব্য করলে কনমেবল খুব কঠোর ভাবে দেখে। কনমেবল এর গভর্নিং এ এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

মেসিকে দুই বছর পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা জারি করতে পারে, যা তাকে কাতার বিশ্বকাপ ও ২0২২ সালে আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়াতে কোপা আমেরিকায় নিষিদ্ধ করতে পারে। কনমেবল মেসির মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় একটি বিবৃতি প্রকাশ করে, যেখানে তারা এটিকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলে দাবি করে।

মেসি

কনমেবল বিবৃতিতে বলা হয় “অভিযোগগুলি প্রতিযোগিতার প্রতি শ্রদ্ধার অভাব, সমস্ত ফুটবল খেলোয়াড় এবং কনমেবল এর শত শত পেশাদার, যেসকল প্রতিষ্ঠান দক্ষিণ আমেরিকা ফুটবলকে স্বচ্ছ, পেশাদারী এবং বিকাশে কাজ করে চলেছে, তাদের প্রতি সন্মানের অভাবের প্রতিনিধিত্ব করে।”

সোর্স : All Football

আপডেট নিউজ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন। ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here